Categories
খেলার মাঠ

মুশফিকের অবসর নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ সাকিব

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এশিয়া কাপ থেকে ব্যর্থ হয়ে ফিরে গণমাধ্যমে কথা বলেনি। এরই মধ্যে গতকাল রোববার মুশফিকুর রহিম টি- টোয়েন্টি থেকে অবসর নিয়েছেন। মুশফিকের অবসরের পর মাহমুদউল্লাহ সামাজিক মাধ্যমে তার মনোভাব পোষণ করেছেন। বলেছেন, মুশির অবসর ঘোষণায় হৃদয় ভেঙে গেছে তার।

টি টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান মুশফিকের অবসর নিয়ে এখনো কিছু বলেননি। আজ সোমবার বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজদের নাম প্রকাশ করেছে। সাকিব সেই অনুষ্ঠানে ফ্র্যাঞ্চাইজ নিয়ে উপস্থিত ছিলেন।

সাকিব অনুষ্ঠান শেষে হকি ও অন্য খেলা নিয়ে প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। এক পর্যায়ে সাংবাদিকরা মুশফিকের অবসর নিয়ে জানতে চান তখন তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। আবার মুশফিক ও ক্রিকেট প্রসঙ্গ আসলে তিনি বলেন, ‘আজ হকি নিয়েই বলব। ক্রিকেট নিয়ে এখানে নয়, পরে।’

এদিকে  সাকিব তার ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান মোনাক মার্টের মাধ্যমে ক্রিকেট সহ অন্য খেলাকেও এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন। সাকিবের প্রতিষ্ঠান মোনাক মার্ট হকি লিগের অন্যতম ফ্র্যাঞ্চাইজি।

সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সঙ্গে এসিই’র আনুষ্ঠানিক চুক্তি হবে। সেই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আজ উপস্থিত ছিলেন ফ্র্যাঞ্চাইজির স্বত্বাধিকারীরাও। অনেকটা ক্রিকেটের বিপিএলের আদলে আয়োজিত হতে যাচ্ছে ঘরোয়া হকির এই প্রতিযোগিতা।

Categories
খেলার মাঠ

পেসার আল আমিন পালিয়েছেন, মানববন্ধনে দাবি স্ত্রীর

স্ত্রীকে পেটানোর অভিযোগে মামলা হয়েছে জাতীয় দলের অন্যতম পেসার আল আমিন হোসেনের বিরুদ্ধে। আর সেই মামলার পর পালিয়ে বেড়াচ্ছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

গ্রেফতারে কাজ শুরুর পর আল আমিনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সোহেল রানা।

এসআই জানান, যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে নির্যাতন, মারধর ও বাচ্চাসহ বের করে দেওয়ার অভিযোগে এজাহারভুক্ত আসামি আল-আমিন হোসেন পলাতক। মিরপুর-২ নম্বর রোডে আল আমিনের বাসায় গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। তাকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

গত বৃহস্পতিবার পেসার আল আমিনের বিরুদ্ধে মিরপুর মডেল থানায় তার স্ত্রী ইসরাত জাহান একটি লিখিত অভিযোগ করেন।  লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার মামলা আকারে নথিভুক্ত হয়।

আল-আমিনকে খুঁজে না পাওয়ার বিষয়ে তার মামা শ্বশুর গণমাধ্যমকে বলেন, মামলার পর থেকেই আল-আমিন পলাতক। বাসা থেকে পালিয়ে গেছে সে।  এখনবধি তার কোনো খোঁজ নেই। তাকে ফোনেও পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে পুলিশ খুঁজলেও গ্রেফতারে করতে পারেনি।

এদিকে পেসার আল আমিনের বিরুদ্ধে ভয়ংকর সব অভিযোগ এনে মানববন্ধন করেছেন তার স্ত্রী ইসরাত জাহান। রোববার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের ১ নং গেটে এ মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
ইসরাতের দাবি, অন্য মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে আল-আমিনের। মানববন্ধনের ব্যানারে আল আমিনকে নারী নির্যাতনকারী, অর্থ ও নারী লোভী লিখে তার গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন ইসরাত।

এ বিষয়ে ইসরাত জাহান বলেন, ‘ওই মেয়ের সঙ্গে আল-আমিনের বিয়ে হয়েছে কি না, তা জানি না। কাবিননামাও পাইনি। তবে ওই মেয়ের সঙ্গে আল-আমিনের অনেক ছবি আছে।’

তিনি বলেন, ‘দুটো বাচ্চা নিয়ে আমি এখন কোথায় যাবো? আমার এখন একটাই চাওয়া, বাচ্চাদের নিয়ে যেন ভালোভাবে সংসার করতে পারি।’

মামলার নথিকে স্ত্রী ইসরাত জাহানের অভিযোগ, ‘গত ২৫ আগস্ট রাতে বাসায় এসে যৌতুকের ২০ লাখ টাকা এনেছি কিনা জানতে চায় আল আমিন। এত টাকা দেওয়া তার পরিবারের পক্ষে সম্ভব নয় বলে জানালে আল আমিন তাকে মারধর করে। পরে ৯৯৯-এ কল দিলে পুলিশ এসে তাকে (ইসরাত জাহান) উদ্ধার করে রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করে।’

সেদিন ইসরাত জাহান ৯৯৯-এ কল দিলে তাকে আহতাবস্থায় হাসপাতাল নেওয়া হয়েছিল বলে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন এসআই সোহেল রানা।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন জাতীয় দলের বাইরে থাকা ক্রিকেটার আল আমিন ও ইসরাত জাহানের দাম্পত্য জীবন ১২ বছরেরও বেশি সময়ের। তাদের দুই পুত্রসন্তান রয়েছে। বড় ছেলের বয়স ৬ বছর এবং ছোট ছেলের বয়স সাড়ে চার বছর।

এর আগে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে শাস্তির মুখে পড়েছিলেন আল আমিন। এ ছাড়া নানা সময়ে মাঠে অশোভন আচরণের কারণেও বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি।

Categories
খেলার মাঠ

টস হেরে ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান

এশিয়া কাপের চলতি ১৫তম আসরের ষষ্ঠ ম্যাচে হংকংয়ের মুখোমুখি পাকিস্তান ক্রিকেট দল। সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজায় শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে পাকিস্তানকে প্রথমে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে হংকং।

পাকিস্তান ও হংকং নিজেদের প্রথম ম্যাচে হেরেছে। তাই আজকের ম্যাচটি দুই দলের জন্যই ‘অঘোষিত ফাইনাল’র মতো।

আজকের ম্যাচে যারা জিতবে তারা সরাসরি বি গ্রুপ থেকে এশিয়া কাপের সুপার ফোরে খেলার সুযোগ পাবে। এই গ্রুপ থেকে সবার আগে সুপার ফোরে খেলা নিশ্চিত করেছে রেকর্ড সাত আসরের চ্যাম্পিয়ন ভারত।

পাকিস্তান যদি হংকংকে হারাতে পারে তাহলে রোববার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের সঙ্গে ফের দেখা হবে বাবর আজমদের। প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে হেরে যায় পাকিস্তান।

কিন্তু আজ যদি পাকিস্তান হেরে যায় তাহলে আসর থেকেই ছিটকে পড়বে।

পাকিস্তান: বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান, ফখর জামান, ইফতেখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, আসিফ আলী, সাদাব খান, মোহাম্মদ নওয়াজ, নাসিম শাহ, হারিস রউফ ও শাহনেওয়াজ ধানি।

Categories
খেলার মাঠ

জাতীয় দলে খেলতে বিমানের চাকরি ছাড়লেন তিনি

whatsapp sharing button

ফুটবলই তার নেশা, ফুটবলই তার প্রাণ ও জীবনের লক্ষ্য – সে কথা কাজে প্রমাণ দিলেন ফরোয়ার্ড সুমন রেজা। জাতীয় দলে খেলা চালিয়ে যাওয়ার অভিপ্রায়ে বিমানবাহিনীর সৈনিক পদের চাকরিটাই ছেড়ে দিলেন।

গত রোববার বিষয়টি নিশ্চিত করে সুমন বলেছিলেন, ‘বিমানবাহিনী আমাকে জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দেওয়ার অনুমতি দেয়নি। তাই দেশের ফুটবলের স্বার্থে আমি চাকরি ছেড়ে দিয়ে ক্যাম্পে যোগ দিচ্ছি।’

দুটি ফিফা আন্তর্জাতিক ম্যাচ সামনে রেখে ক্যাম্পে অনুশীলন করছে বাংলাদেশ দল। সেই ক্যাম্পে যোগ দিতে বিমানবাহিনীর পক্ষ থেকে ছাড়া পাচ্ছিলেন না তিনি। ছুটি দেওয়া হয়নি তাকে।

অবশেষে ইস্তফা দিয়ে সোমবার ক্যাম্পে উঠেন এ ফরোয়ার্ড।  সোমবার উত্তরার আর্মড পুলিশ মাঠে অনুশীলন শেষে সুমন বলেন, ‘নিজের কাছে বেশ অসহায় লাগছিল। সবাই ক্যাম্পে আছে। অনুশীলন করছে। অথচ আমি বাইরে। তবে এখন একটু ভালো লাগছে।’

জাতীয় দলের ম্যানেজার ইকবাল হোসেন বলেন, ‘সুমন রেজা বিমানবাহিনীর চাকরি ছেড়ে দিচ্ছে বলে জানিয়েছে। আজ (গতকাল) রাতেই তার ক্যাম্পে যোগ দেওয়ার কথা।’

এদিকে জানা গেছে, বিমানের চাকরি ছাড়লেও সুমনের পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়নি। বিমান বাহিনী ক্রীড়া নিয়ন্ত্রণ বোর্ড থেকে জাতীয় দলে খেলার জন্য ছাড়পত্র দিয়েছে তাকে।

আগামী ২২ ও ২৭ সেপ্টেম্বর দুটি ম্যাচ হবে। প্রথমটি কম্বোডিয়া ও পরেরটি নেপালের বিপক্ষে। দুটি ম্যাচই প্রতিপক্ষের মাঠে। সেই লক্ষ্যে পুলিশ এফসির মাঠে জাতীয় দলের অনুশীলন চলছে। হাভিয়ের কাবরেরার অধীনে ২৭ জন খেলোয়াড় অনুশীলনে আছেন। এর মধ্যে সুমন অন্যতম।

Categories
খেলার মাঠ

বাংলাদেশকে হারিয়ে উচ্ছ্বসিত আফগানিস্তান অধিনায়ক যা বলল

print sharing button

শ্রীলংকাকে ৫৯ বল হাতে রেখে ও ৮ উইকেটে হারিয়ে এশিয়া কাপে দুর্দান্ত শুরু করে আফগানিস্তান। গুরবাজ, নাজিবুল্লাহদের ব্যাটিং তাণ্ডব আর আফগান বোলারদের কাছে লঙ্কান ব্যাটারদের অসহায় আত্মসমর্পন দেখে চিন্তায় পড়ে বাংলাদেশ।

তবে রশিদ-মুজিবদের ভালোভাবে মোকাবিলায় নেটে নিজেদের ঝালিয়ে নেন সাকিব-মুশফিক-রিয়াদরা।

কিন্তু সেই রশিদ-মুজিবের ঘুর্ণিজাদুতেই ধরাশায়ী হয়েছে টাইগাররা। মাত্র ১২৮ রানের লক্ষ্য দিতে পারে সাকিব বাহিনী।

আর সেই লক্ষ্য ‘দুই জাদরান’ ইব্রাহিম এবং নাজিবুল্লাহর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে পার করে দেয় আফগানিস্তান। ৯ বল হাতে রেখেই ৭ উইকেট জয় তুলে নিয়েছে আফগানরা।

আর তাতে এশিয়া কাপ গ্রুপ ‘বি’র চ্যাম্পিয়ন হয়েই সুপার ফোরে জায়গা করে নিয়েছে মোহাম্মদ নবির দল।

পর পর দুর্দান্ত জয়ে উচ্ছ্বসিত মোহাম্মদ নবি।

ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আফগানিস্তান দলের অধিনায়ক বললেন, ‘সবাই জানে রশিদ এবং মুজিব বিশ্বমানের স্পিনার। সে কারণেই আমরা প্রথম ১০ ওভারে খেলায় ছিলাম। আমরা খেলায় এগিয়ে ছিলাম কারণ আমরা প্রথম উইকেট পেয়েছিলাম। সবাই জানে আমাদের ব্যাটিং লাইনআপের শেষেও পাওয়ার হিটার আছে। তাই আমরা শুরুতে উইকেট ধরে রেখে খেলেছি।  তাড়াতাড়ি উইকেট না হারাতে চেয়েছি, যাতে আমাদের পাওয়ার হিটাররা খেলা শেষ করতে পারে।’

Categories
খেলার মাঠ

বাংলাদেশ না আফগানিস্তান, কে এগিয়ে?

এশিয়া কাপের ১৫তম আসরের তৃতীয় ম্যাচে আজ রাত ৮টায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজায় আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে এশিয়া কাপের পাঁচবারের শিরোপাজয়ী শ্রীলংকাকে হারিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে মোহাম্মদ নবি-রশিদ খানরা।

বাংলাদেশ চলতি আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে খেলবে আজ।

ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে শুরু থেকেই দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলে যাচ্ছে আফগানিস্তান। ইতোমধ্যে ১০০ ম্যাচ খেলে ৬৭টিতে জয় তুলে নিয়েছে তারা। পরাজয় মাত্র ৩৩টিতে।

অন্যদিকে বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টিতে অতীতে ১৩১ ম্যাচে অংশ নিয়ে মাত্র ৪৩টিতে জয় পেয়েছে। হারে ৮৩ ম্যাচে।

ম্যাচ জয়ের এই পরিসংখ্যানেই স্পস্ট, আফগানিস্তান টাইগারদের চেয়ে যোজন যোজন ব্যবধানে এগিয়ে।

শুধু তাই নয়, দুই দলের অতীত সাক্ষাতের পরিসংখ্যানও আফগানদের হয়ে কথা বলছে। অতীতে দুই দল টি-টোয়েন্টির সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে ৮ ম্যাচ মুখোমুখি হয়। অতীতের সেই সাক্ষাতে আফগানিস্তান জয় পায় ৫টিতে। আর বাংলাদেশ জয় পায় মাত্র ৩টিতে।

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সেও এগিয়ে আফগানরা। সবশেষ ১০ ম্যাচে অংশ নিয়ে বাংলাদেশ মাত্র ২টিতে জয় পেয়েছে। হেরেছে ৮টিতে। আর আফগানিস্তান সবশেষ ১০ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৭টিতে জয় আর হার মাত্র তিনটিতে।

দলীয় সর্বোচ্চ

বাংলাদেশ ১৫৫/৮, ঢাকা, ২০২২

আফগানিস্তান ১৬৭/৮, দেরাদুন, ২০১৮

দলীয় সর্বনিম্ন

বাংলাদেশ ১১৫/৯, ঢাকা, ২০২২

আফগানিস্তান ৭২, ঢাকা, ২০১৪

সবচেয়ে বেশি রান

বাংলাদেশ ১৬৯, মাহমুদউল্লাহ

আফগানিস্তান ১৪১, মোহাম্মদ নবি

সর্বোচ্চ ইনিংস

বাংলাদেশ ৭০*

সাকিব আল হাসান, চট্টগ্রাম, ২০১৯

আফগানিস্তান ৮৪*

মোহাম্মদ নবি, ঢাকা, ২০১৯

সবচেয়ে বেশি ছক্কা

বাংলাদেশ ৫, মাহমুদউল্লাহ

আফগানিস্তান ৯, মোহাম্মদ নবি

সর্বোচ্চ জুটি

বাংলাদেশ ৮৪, মুশফিকুর ও মাহমুদউল্লাহ, দেরাদুন, ২০১৮

আফগানিস্তান ৯৯, জাজাই ও উসমান ঘানি, ঢাকা, ২০২২

সবচেয়ে বেশি উইকেট

বাংলাদেশ ১০, সাকিব আল হাসান

আফগানিস্তান ১৪, রশিদ খান

সেরা বোলিং

বাংলাদেশ ৪/১০, নাসুম আহমেদ, ঢাকা, ২০২২

আফগানিস্তান ৪/১২, রশিদ খান, দেরাদুন, ২০১৮

Categories
খেলার মাঠ

‘ভারতের হার্দিক, আমাদের সাকিব’

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে টানটান উত্তেজনাকর ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে ভারতকে জয় উপহার দেন হার্দিক পান্ডিয়া। তার মতো একজন অলরাউন্ডারের ভূমিকা কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা বুঝাতে গিয়ে বাংলাদেশ দলের টেকনিক্যাল পরামর্শক শ্রীধরন শ্রীরাম বলেন, বাংলাদেশেরও আছে সাকিব। যিনি কিনা দলে আনেন দারুণ ভারসাম্য।

শ্রীরাম বলেন, অলরাউন্ডারের ভূমিকা অতুলনীয়। হার্দিক পান্ডিয়া, বেন স্টোকসের মতো ক্রিকেটার খুব একটা হয় না। এমন অলরাউন্ডার দলে দারুণ ভারসাম্য নিয়ে আসে। আপনি কখনো একজন বাড়তি ব্যাটার কখনো আবার বাড়তি বোলার খেলাতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, হার্দিক আছে বলেই মনে হয়েছে ভারত ১২ জন নিয়ে খেলছে। আমাদেরও আছে সাকিব। ৪ ওভার বল করতে পারে, টপ অর্ডারে ব্যাট করতে পারে।

মঙ্গলবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিজের শততম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলতে নামা সাকিব প্রসঙ্গে শ্রীরাম বলেন, সাকিবের টি-টোয়েন্টি ভাবনা খুব আধুনিক। বাংলাদেশের ক্রিকেটে ও খুব ব্যতিক্রম।

Categories
খেলার মাঠ

প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ দলের সম্ভাব্য একাদশ

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে চলমান এশিয়া কাপ শুরু হওয়ার আগেই দুশ্চিন্তায় ডুবেছিল বাংলাদেশ দল। কারণ খুদে সংস্করণে টাইগাররা এখনো ধারাবাহিক নয়।  যে কারণে কোচ ও অধিনায়ক বদলে এশিয়া কাপে নতুনত্ব আনতে চেয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

কিন্তু এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচেই শ্রীলংকার বিপক্ষে আফগানিস্তান দলের ক্ষুরধার বোলিং ও ধুম-ধাড়াক্কা ব্যাটিং দেখে দুশ্চিন্তা আরও বেড়ে গেল টাইগার শিবিরে।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে ৫৯ বল হাতে রেখে ১০৫ রানের বিশাল ব্যবধানে শ্রীলংকাকে হারায় আফগানিস্তান।

সে ম্যাচের বিষয়টি আমলে নিয়েই বিসিবি সভাপতির অকপটে স্বীকার করেন, দল নিয়ে তিনি বেশ চিন্তিত, তবে কাউকে ভয় পায় না বাংলাদেশ।

রহমাতুল্লাহ গুরুবাজের মতো ১৮ বলে ৪০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলার মতো ব্যাটার বাংলাদেশ দলেও আছে। তবে তা মাঠেই প্রমাণ দেবে বাংলাদেশ – সে কথাই জানালেন দলের স্পিন-অলরাউন্ডার মেহিদী হাসান মিরাজ।  তিনি জানালেন, ‘যারা ব্যাটিং ভালো করবে তাদের সুযোগ বেশি থাকবে (ম্যাচ জেতায়)।

এদিকে আফগান দলের দুই স্পিনার রশিদ খান ও মুজিব-উর-রহমানের স্পিনবিষকে নিবির্ষের প্রশিক্ষণ সেরে রেখেছে টাইগাররা।  নেটে দুই ভারতীয় লেগস্পিনার দিয়ে সাকিব-মুশফিকদের ঝালিয়ে নিয়েছেন দলের ট্যাকনিক্যাল পরামর্শক শ্রীধরন শ্রীরাম।

এখন এটাই প্রশ্ন আজকে শারজায় বাংলাদেশ একাদশে দেখা যাবে কাদের?

সে প্রশ্নে, ওপেনিংয়ে এনামুল হক বিজয় নিশ্চিত।  তার সঙ্গী হিসেবে দেখা যেতে পারে অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকেই। এর পর মুশফিক, রিয়াদ ও মিডলঅর্ডারে অলরাউন্ডার আফিফ দলের প্রতিনিধিত্ব করবেন।  প্রয়োজনে হাল ধরবেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

বোলিংয়ে পেস আক্রমণে মোস্তাফিজুর রহমান ও এবাদত হোসেন নিশ্চিত।  চোট কাটিয়ে দীর্ঘ সময় পর জাতীয় দলে ফেরা অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে দেখা যেতে পারে তাদের সঙ্গী হিসেবে।  স্পিনে মিরাজের সঙ্গে দেখা যেতে পারে নাসুম আহমেদকে।

এশিয়া কাপের বাংলাদেশ দলের চূড়ান্ত স্কোয়াড:

এনামুল হক বিজয়, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন (সহ-অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত/সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান, নাসুম আহমেদ,  এবাদত হোসেন।

Categories
খেলার মাঠ

আমরা কাউকে ভয় পাই না: পাপন

linkedin sharing button

ওয়ানডে ফরম্যাটে যতটা না বাঘের গর্জন টি-টোয়েন্টিতে ততটাই ম্রিয়মান বাংলাদেশ।

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবির পরও ছন্দে ফিরতে পারেনি টাইগাররা।  বিষয়টি আমলে নিয়ে অধিনায়কের পর কোচই বদলে ফেলেছে বিসিবি।

এতেও দুশ্চিন্তামুক্ত হননি বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।  এবারের এশিয়া কাপে জাতীয় দলের সঙ্গে আরব আমিরাতে গেছেন তিনি।

পাশে থেকেই ক্রিকেটারদের উৎসাহ দিতে চান তিনি।

শনিবার টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচটি টিম হোটেলে দলের খেলোয়াড়দের সঙ্গেই দেখেছেন পাপন।  শ্রীলংকার বিপক্ষে আফগানিস্তানের এমন আগ্রাসী ব্যাটিং দেখে পাপনের দুশ্চিন্তা আরও বেড়ে গেল।

কপালের চিন্তার ছাপ স্পষ্ট হলেও কোনো দলকেই ভয় পান না বলে জানিয়ে দিলেন পাপন।

উপস্থিত সাংবাদিকদের বিসিবি সভাপতি বললেন, ‘আমরা কাউকে ভয় পাই না, এটা হলো বড় কথা। আমরা প্রথম ম্যাচটাই জিততে চাই। যাতে টুর্নামেন্টে একটা ভালো অবস্থানে থাকা যায়।’

শ্রীলংকাকে গুঁড়িয়ে দিয়ে ৮ উইকেটে আফগানিস্তানের  দুর্দান্ত জয়ের প্রসঙ্গে পাপন বলেন, ‘সব সময় বলেছি আফগানিস্তানকে ছোট করে দেখা যাবে না। টি-টোয়েন্টি ওরা খুব শক্তিশালী। তবে আমাদের প্রত্যেক খেলোয়াড়কে দেখে চাঙা ও আত্মবিশ্বাসী মনে হয়েছে। আসলে আমি নিজের দলকে নিয়েই চিন্তিত। আফগানিস্তানের বিপক্ষে আমাদের প্রথম ম্যাচ, আমরা এটার ওপরেই মনোযোগ দিচ্ছি। এটা যদি আমরা জিতে চাই, তাহলে শ্রীলঙ্কার সাথেও জিতবো, সবগুলোই জিতব ইনশাআল্লাহ্।’

Categories
খেলার মাঠ

শ্রীলংকা-আফগানিস্তান লড়াই: পরিসংখ্যান ও সম্ভাব্য একাদশ

print sharing button

সংযুক্ত আরব আমিরাতে আজ পর্দা উঠছে এশিয়া কাপের ১৫তম আসরের। ১১ সেপ্টেম্বর ফাইনাল।

অস্ট্রেলিয়ায় টি ২০ বিশ্বকাপ সামনে রেখে মরুর বুকে ছয় জাতির এই টি ২০ মহাযজ্ঞে নিজেদের মেলে ধরতে উন্মুখ অনেকেই।

ছয় দলের এই টুর্নামেন্টে দুটি গ্রুপ। ‘এ’ গ্রুপে রয়েছে ভারত, পাকিস্তান আর বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা হংকং।

‘বি’ গ্রুপে বাংলাদেশ, শ্রীলংকা ও আফগানিস্তান।

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে আজ মুখোমুখি শ্রীলংকা আর আফগানিস্তান। দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত আটটায়।

টি-টোয়েন্টি অনিশ্চয়তার খেলা হলেও শক্তিমত্তা আর পরিসংখ্যান বিবেচনায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে লঙ্কানদের ফেবারিট মানছেন অনেকেই।

দুই দলের মধ্যে কে এগিয়ে? প্রশ্নে কাগজে-কলমে লঙ্কানদের এগিয়ে রাখবে ক্রিকেটবিশ্ব। তবে সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স দেখলে আবার এগিয়ে রয়েছে আফগানিস্তান।

২০২০ সালের পর শ্রীলংকা টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতেছে মাত্র একটি। তাও ভারতের দ্বিতীয় সারির দলের বিপক্ষে।  আর আফগানিস্তান জিতেছে ৫টি।  আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতেছে রশিদ খানের দল, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জিতেছে দুটি, একটি ড্র করেছে বাংলাদেশের সঙ্গে।

আফগানিস্তানের সম্ভাব্য একাদশ
হজরতউল্লাহ জাজাই, রহমানুল্লাহ গুরবাজ (উইকেটরক্ষক), ইব্রাহিম জাদরান, নাজিবুল্লাহ জাদরান, মোহাম্মদ নাবি (অধিনায়ক), সামিউল্লাহ শিনওয়ারি, রশিদ খান, করিম জানাত, নাভিন-উল-হক, মুজিব উর রহমান, নুর আহমেদ।

শ্রীলংকার সম্ভাব্য একাদশ

কুশল মেন্ডিস (উইকেটরক্ষক), দানুশকা গুনাথিলাকা, চারিথ আসালাঙ্কা, ভানুকা রাজাপাকসে, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা/ আসেন বান্দারা, দাসুন শানাকা (অধিনায়ক), ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, চামিকা করুনারত্নে, মাহিশ থিকসানা, মাথিসা পাথিরানা, দিলশান মধুশঙ্কা।